ইসলামিক বোরকা ডিজাইন (2023) ও ইসলামের পর্দা নিয়ে বিস্তারিত

ইসলাম নারীর মর্যাদাকে বারানোর জন্য পর্দা করার কথা বলেছে। পর্দা নারীর সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে আর পর্দা মানেই হলো বোরকা পরিধান করা। এবং বাকি সব বেপর্দা নারীদের থেকে পর্দাশীল নারীর সম্মান সব সময় সবার কাছে বেশি হয়ে থাকে। তাই একজন মুসলিম নারী হিসেবে পর্দা করা তার জন্য অপরিহার্য। পর্দা শুধু নারীদের সম্মান বৃদ্ধি করে না বরং রক্ষা করে থাকে কিছু বিকৃত মস্তিষ্কের মানুষদের কাছ থেকে। বোরকা তো আমরা সবাই পরি কিন্তু কতটা ইসলামিক হয় সেটা জানিনা।

ইসলামিক বোরকা ডিজাইন (2023) ও ইসলামের পর্দা নিয়ে বিস্তারিত


আজ আমরা ইসলামিক বোরকা ডিজাইন সম্পর্কে জানবো এবং কিছু ইসলামিক বোরকা ডিজাইন দেখবো সেই সাথে পর্দা নিয়ে কিছু কথা উল্লেখ করব। তার আগে এক নজরে ইসলামিক বোরকা ডিজাইন নিয়ে সূচিপত্র দেখে নিন।

সূচিপত্র: ইসলামিক বোরকা ডিজাইন

ইসলামিক বোরকা কেন পরবেন?

বর্তমান সময়ে বোরকার নামে চলছে এক ধরনের প্রহসন। বাজারে চলে এসেছে হরেক রকম আকর্ষণীয় বোরকা। মেয়েরা বাহারি ডিজাইন করা বোরকার সঙ্গে ফিনফিনে স্কাপ বাধে বাহারি অলংকার আর গয়না পরে নিজের চেহারার সৌন্দর্য আর নিজের অঙ্গের সুদীপ্ত আভা প্রদর্শন করছে। এসব দ্বারা ইসলাম ঘোষিত শরীয়তী বোরকার চাহিদা পূরণ হচ্ছে না কারণ ফ্যাশনের উপকরণ কিংবা সৌন্দর্যবর্ধনের মাধ্যম নয় সমাজের সচেতন মুসলমানরা যদি এ ব্যাপারে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ না করেন তাহলে হয়তো অচিরেই আল্লাহর গজব আমাদের ধ্বংস করতে পারে।

ইসলামিক বোরকা ডিজাইন সম্পর্কিত কিছু তথ্য

বর্তমানে ইন্টারনেট সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ও টেলিভিশনের বিজ্ঞাপনে নারীদেরকে পণ্য হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে ফ্যাশনের নামের নারী ও পুরুষকে পর্দা করার যে ট্রেন শুরু হয়েছে তা ব্যক্তি ,পরিবার ,সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য এক মরণব্যাধি। সম্প্রতি নারী নির্যাতন খুব বেড়ে গেছে বিশেষত উঠতি বয়সী মেয়েরা চরম নিরাপত্তাহীনতার স্বীকার এর চরম ব্যর্থতা যে নিজেদের নিরাপদ দিতে পারছে না। 

পর্দার বিধান রক্ষায় আমাদের কর্তব্য পর্দাহীনতার কারণে আমাদের মা-বোনেরা যে নিরাপত্তাহীনতায় আছে তা নিয়ে আমাদের গভীর ভাবে ভাবতে হবে এখন প্রয়োজন আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের নির্দেশ মোতাবেক জীবন যাপন করা। বর্তমান সমাজে নিজেকে সবকিছু থেকে বাঁচিয়ে রাখা কঠিন কিন্তু তার মধ্যেই নিজেকে বাঁচিয়ে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করতে হবে। নিজের বিবেক বুদ্ধিকে একটু সচেতন ভাবে কাজে লাগাতে হবে এবং অবশ্যই নিজেকে যত্রতত্র মোহনীয়ভাবে প্রদর্শন করা থেকে বিরত থাকতে হবে। 

ইসলামিক বোরকা ডিজাইন

নারীদের জীবন পর্দা করা ফরজ তেমনি তাদের পর্দার বিধান মোতাবেক চলতে দেওয়া পুরুষের উপর ফরয পুরুষরা নারীদের অভিভাবক তাদের জন্য ফরয হলো নারীদেরকে পর্দায় রাখা যেসব পুরুষ তাদের অধীনস্থ নারীদের পর্দা রাখার চেষ্টা করে না তাদের জন্য রয়েছে জাহান্নামের কঠিন শাস্তি মুসলিম উম্মাহ উচিত অশালীন পোশাক পরিহার করা শালীন পোষাক পরিধান করা সমাজের প্রত্যেক নারী ও পুরুষের উচিত তাদের নিজ নিজ আত্মসম্মানবোধ এবং সৌন্দর্যের হেফাজত করা। নিচে আমি কিছু ইসলামিক বর্তমান সময়ে যে ইসলামিক বোরকা গুলো পাওয়া যায় সেগুলো দেখাচ্ছি।
















ইসলামিক বোরকা ডিজাইন সম্পর্কে শেষ কথা

বোরকা বা পর্দার গুরুত্ব সম্পর্কে শেষ কথা হচ্ছে যে সমাজ থেকে পর্দা উঠে যায় সে সমাজে নির্লজ্জতার ও বেহায়াপনা অশ্লীলতা অশান্তি বেড়ে যায়। পর্দার লংঘন করে চলাফেরা করা দুনিয়ার কর্ম সম্পাদন করা নারীর সৌন্দর্য ও‌ সম্মানকে কখনোই বাড়ায় না বরং কমিয়ে দেয়। একজন মুসলিম নারী হিসেবে তার পর্দা করা বাধ্যতামূলক। পর্দা করা সব সময় একজন মেয়ে ও নারীকে নিরাপদ চলাফেরা করার শক্তি ও নিশ্চয়তা দেয়। একজন পর্দাশীল নারী কখনই ইভটিজিং এর মতো ঘৃণ্য কাজ এর শিকার হয় না। আল্লাহ ও রাসূলের নির্দেশ মতো পর্দা করলে কখন এসে কোন রকম বিপদের সম্মুখীন হবে না। 

রাস্তাঘাটে সে ভয় নিয়ে চলাফেরা করবে না যদি সে ইসলামিক মত বোরকা পরিধান করে বাইরে যায়। এই পর্দা পড়া বা বোরকা পরা একজন নারীকে যেমন দুনিয়াতে তার সম্মান বাড়িয়ে দেয় তেমনি ভাবে আসি রাতে বা পরকালেও তার সম্মান তার চেয়ে হাজার গুণ বাড়িয়ে দেয়। তাই আমরা মনে করি একজন মুসলিম নারী হিসেবে তার অবশ্যই পর্দা করা উচিত এবং ইসলামিক মোতাবেক পর্দা করা উচিত ইসলামিক মোতাবেক বোরকা পরা উচিত। আশা করছি আমাদের আজকের বুরকা ইসলামিক বোরকা ডিজাইন গুলো দেখে আপনারা ধারণা পেয়েছেন ইসলামিক বোরকা গুলো কেমন হয়। এবং সেই মোতাবেক আপনারা পর্দা করতে উৎসাহিত হয়েছেন। তারপরেও যদি কোন সমস্যা থাকে তাকে কোন প্রশ্ন থাকলে আপনারা আমাদের কমেন্ট বক্সে জানিয়ে রাখবেন এবং ইসলামিক বোরকা ডিজাইন পোস্টটি পড়ে আপনাদের কেমন লাগলো সেটা অবশ্যই আমাদেরকে জানিয়ে দিবেন। 

আশা করছি ভাল লেগেছে আমাদের আজকের আর্টিকেলটি পড়ে যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই শেয়ার করে দেবেন বন্ধুদের মাঝে যেন তারাও জানতে পারে পর্দা করা এবং ঠিক কেমন ইসলামিক বোরকা গুলো হয় ইসলামিক বোরকা গুলো ডিজাইন এবং তারাও যেন সেই মোতাবেক পর্দা করতে পারে ইসলামিক বিধান অনুসারে। আবার আসব আর নতুন কোন পোস্টে নতুন কোন বিষয় নিয়ে ততক্ষণ পর্যন্ত ভালো থাকবেন ধন্যবাদ। 

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url