[১টি] আর্সেনিক দূষণ অনুচ্ছেদ (২০২৩ আপডেট)

আর্সেনিক দূষণ অনুচ্ছেদ, আর্সেনিক দূষণ অনুচ্ছেদ রচনা, (আর্সেনিক দূষণ অনুচ্ছেদ for Class 1, 2, 3, 4, 5, 6, 7, 8, 9, 10) (আর্সেনিক দূষণ অনুচ্ছেদ ১ম, ২য়, ৩য়, ৪র্থ, ৫ম, ৬ষ্ঠ, ৭ম, ৮ম, ৯ম, ১০ম শ্রেণি) (আর্সেনিক দূষণ অনুচ্ছেদ pdf, বাংলা, লিখি, 100 - 150 শব্দ, লিখন, ২০২৩, ক্লাস ১০, ssc, hsc, jsc)

[১টি] আর্সেনিক দূষণ অনুচ্ছেদ (2022 আপডেট)

"আর্সেনিক দূষণ অনুচ্ছেদ"

পৃথিবীর ভূত্বকের গঠনগত উপাদান গুলির মধ্যে অন্যতম একটি উপাদান হল আর্সেনিক। এটি জননিরাপত্তার জন্য একটি মারাত্মক হুমকি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, বাংলাদেশে আর্সেনিক দূষণ মানব ইতিহাসে গণবিষের সবচেয়ে গুরুতর ঘটনা। আর্সেনিকের বিষ এখন বাংলাদেশের ৬৪টি জেলার মধ্যে ৪১টিতে রয়েছে। আর্সেনিকের বিষক্রিয়ায় প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে আক্রান্ত হয়েছেন লাখ লাখ মানুষ। আর্সেনিকের বিষ জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি। যাইহোক, বেশিরভাগ আমেরিকান এর বিষাক্ত প্রভাব সম্পর্কে অবগত নয়। আর্সেনিক গ্রহের 20টি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদার্থের মধ্যে রয়েছে। যদিও এটি খোলা জায়গায় থাকে, খনিতে এর উপস্থিতি অনেক বেশি স্পষ্ট। এটি স্বাদহীন, গন্ধহীন এবং রাসায়নিকভাবে যৌগ হিসাবে সনাক্ত করা যেতে পারে। মাটি, পানি ও খাদ্যশস্যে এই রাসায়নিক পাওয়া যায়। আর্সেনিক সেবন সহনশীলতা অতিক্রম করার বিপর্যয়কর পরিণতিকে "আর্সেনিক বিষক্রিয়া" বলা হয়। বাংলাদেশের ভূগর্ভস্থ পানিতে অতিরিক্ত আর্সেনিক দূষণের উৎস হিসেবে চিহ্নিত করেছে।  আর্সেনিক দূষণ ধীরে ধীরে বিষক্রিয়ার কারণ হতে পারে। আর্সেনিক-দূষিত পানীয় জল দীর্ঘ সময় ধরে খাওয়া এবং দূষিত জলে রান্না করা খাবার খেলে ত্বকের বিবর্ণতা, হাত-পা রুক্ষ হয়ে যাওয়া এবং শরীরে জ্বালাপোড়া হতে পারে। সঠিকভাবে চিকিৎসা না করালে গ্যাংগ্রিন ও ক্যান্সার হতে পারে, যা মৃত্যু পর্যন্ত ডেকে আনতে পারে। আর্সেনিক, একটি বিষ, তাপ দ্বারা সহজে ধ্বংস হয় না। আর্সেনিক দূষণ দূর করার জন্য ফুটন্ত পানি ভালো বিকল্প নয়। আর্সেনিক দূষণমুক্ত পানীয় জল এটি নির্মূল করার সর্বোত্তম উপায়। ভূপৃষ্ঠের পানি বা বৃষ্টির পানিতে আর্সেনিক পাওয়া যায় না।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url