[৪টি] কম্পিউটার অনুচ্ছেদ (২০২৩ আপডেট)

কম্পিউটার অনুচ্ছেদ, কম্পিউটার অনুচ্ছেদ রচনা, (কম্পিউটার অনুচ্ছেদ for Class 1, 2, 3, 4, 5, 6, 7, 8, 9, 10) (কম্পিউটার অনুচ্ছেদ ১ম, ২য়, ৩য়, ৪র্থ, ৫ম, ৬ষ্ঠ, ৭ম, ৮ম, ৯ম, ১০ম শ্রেণি) (কম্পিউটার অনুচ্ছেদ pdf, বাংলা, লিখি, 100 - 150 শব্দ, লিখন, ২০২৩, ক্লাস ১০, ssc, hsc, jsc)

[৪টি] কম্পিউটার অনুচ্ছেদ (২০২২ আপডেট)

"কম্পিউটার অনুচ্ছেদ রচনা"

কম্পিউটার (Computer) শব্দটির উৎপত্তি ল্যাটিন কমপুটেয়ার (Computare) থেকে, যার ইংরেজি অর্থ কম্পিউট (Compute) বা গণনা করা। সে হিসেবে কমপিউটারের অর্থ গণনাকারী যন্ত্র। কিন্তু বর্তমানে কম্পিউটার শুধু গণনাকারী যন্ত্র নয়। বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে আশ্চর্যজনক আবিষ্কার হলো Computer. কম্পিউটার একটি ইলেকট্রনিক যন্ত্র যা মানুষের দেওয়া তথ্য যুক্তিসঙ্গত নির্দেশের ভিত্তিতে অতি দ্রুত এবং নির্ভুলভাবে গণনার কাজ করে, তার সঠিক ফলাফল প্রদান করতে পারে। বৈদ্যুতিক কম্পিউটারগুলো দু’ধরনের হয়ে থাকে। (১) এনালগ, (২) ডিজিটাল। এনালগ কম্পিউটার ফিজিক্যাল গুণাবলি নিয়ন্ত্রণ করে এবং ডিজিটাল কম্পিউটারগুলো সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করে। মূলত কম্পিউটার মানুষের কস্তিষ্কের বিকল্প হিসেবে মানব কল্যাণে অনেক কাজ করে চলছে এবং মানুষের শক্তি ও সময়ের অপচয় রোধে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। ঘরের, বাজারের হিসাব বা বাচ্চাদের গেম থেকে শুরু করে দেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে কাজ করে। তাই কম্পিউটার আমাদের ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে জাতীয় জীবনে অপরিহার্য হয়ে উঠেছে।

"কম্পিউটার অনুচ্ছেদ"

কম্পিউটার আধুনিক বিজ্ঞানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উদ্ভাবন। কম্পিউটার শব্দটি এসেছে গ্রিক শব্দ ‘কম্পিউট’ থেকে, যার অর্থ হিসাব বা গণনা করা। প্রথম দিকে কম্পিউটার শুধু হিসাব করার যন্ত্র হিসেবে ব্যবহৃত হতো। কিন্তু কালক্রমে কম্পিউটারের এমন বিকাশ ঘটেছে যে, একুশ শতকের সূচনায় এসে কম্পিউটার মানুষের জীবনযাত্রার সকল কাজের নিত্যসঙ্গী হয়ে উঠেছে। অসংখ্য বিজ্ঞানীর বহু বছরের সাধনার ফলে কম্পিউটার প্রযুক্তির এই অভাবনীয় বিকাশ ঘটেছে। দাপ্তরিক কাজ, লেখালেখি, শিক্ষকতা, প্রকাশনা, বাণিজ্য, যোগাযোগ, বিনোদন প্রভৃতি সব ধরনের কাজ এখন পুরোপুরি কম্পিউটার-নির্ভর। নানা ধরনের তথ্য বিশ্লেষণ ও উপস্থাপনের কাজে শিক্ষার্থী ও গবেষককে কম্পিউটারের সাহায্য নিতে হয়। হার্ডওয়্যারের মধ্যে থাকে কিবোর্ড, মাউস, র‍্যাম, মাদারবোর্ড, মনিটর, প্রিন্টার ইত্যাদি। যেসব প্রোগ্রাম দিয়ে কম্পিউটার কাজ করে সেগুলোকে বলে সফটওয়্যার। বাংলাদেশের বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত করতে চায়; এর মানে কম্পিউটার প্রযুক্তির যাবতীয় সুবিধা দেশের সব মানুষের কাছে সহজলভ্য করে তোলা।

"কম্পিউটার অনুচ্ছেদ for Class 9 - 10"

কম্পিউটার আধুনিক বিজ্ঞানের একটি আশ্চর্যজনক আবিষ্কার। এটি একটি অত্যন্ত পরিশীলিত উদ্ভাবন। এটি 'ইলেকট্রিক ব্রেন' নামে পরিচিত। এটি বিশ্বে বিপ্লব ঘটিয়েছে। এটি দ্রুত এবং সহজে বিজ্ঞানের সমস্ত শাখা এবং শাখা জুড়ে জটিল কাজ সম্পাদন করতে সক্ষম। এটি জটিল গাণিতিক সমস্যার সমাধান করতে পারে। এটি ধারাবাহিকভাবে হাজার হাজার তথ্য পরিচালনা করতে পারে। মাত্র কয়েক সেকেন্ডে, এটি লক্ষ লক্ষ সমস্যার সমাধান করতে পারে। এটি একটি ব্যবসা পরিচালনা করতে পারে, গেম খেলতে পারে বা গান লিখতে পারে। এটি মহাকাশ অনুসন্ধান, টেলিযোগাযোগ এবং মহাকাশযান নিয়ন্ত্রণে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। আধুনিক জীবনের সকল ক্ষেত্রে কম্পিউটার ব্যবহৃত হয়। কম্পিউটার শিক্ষা আমাদের দৈনন্দিন জীবনের জন্য অপরিহার্য। কম্পিউটার শিক্ষা মানুষকে সময় ও শক্তি বাঁচাতে সাহায্য করতে পারে। কম্পিউটার প্রযুক্তিতে বাংলাদেশ দ্রুত অগ্রগতির অভিজ্ঞতা অর্জন করছে। যে কয়টি বিদেশি দেশ বাংলাদেশে আগ্রহ প্রকাশ করেছে তার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানি মাত্র কয়েকটি। তারা আমাদের দেশের হাজার হাজার আইটি পেশাদারদের জন্য তাদের ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। এই সুবর্ণ সুযোগ তখনই কাজে লাগানো যাবে যদি আমরা কম্পিউটার সম্পর্কে শিখি। কম্পিউটার শিক্ষার প্রসারের জন্য সরকারের যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া অপরিহার্য। আমরা উপসংহারে বলতে পারি যে কম্পিউটার শিক্ষার অনেক সুবিধা রয়েছে। যে কোনো দেশের সফলতার জন্য কম্পিউটার শিক্ষা অপরিহার্য।

"কম্পিউটার অনুচ্ছেদ for Class 7"

কম্পিউটার আবিষ্কার আধুনিক প্রযুক্তির একটি বড় অগ্রগতি। এটি আধুনিক যুগের শ্রেষ্ঠ আবিষ্কার। ব্রিটিশ গণিতবিদ চালর্স ব্যাবেজকে এর দিশারী মনেকরা হয়। কম্পিউটার আবিষ্কার প্রথমদিকে কেবল গণনার কাজে ব্যবহৃত হতো। কিন্তু বর্তমানে বাস্তব জীবনের এমন কোনো ক্ষেত্র নেই যেখাবে এর ব্যবহার নেই। এটিকে মানুষের মস্তিস্কের বিকল্প হিসেবে বিবেচনা করা হয়।  কম্পিউটার শিক্ষার সকল শাখায় জটিল সব ক্রিয়াকর্ম সম্পদান করতে সক্ষম। কয়েক মিনিটের মধ্যে একটি কম্পিউটার অনেক জটিল হিসাব-নিকাশ করতে পারে। আজকাল কম্পিউটার অত্যাধুনিক হয়ে উঠেছে। একে বিভিন্ন গবেষণার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। এটি ব্যবসা চালাতে পারে, দাবা খেলতে পারে এমনকি সংগীত সৃষ্টি করতে পারে। এটি আমাদের জীবনে এনেছে বৈপ্লবিক পরিবর্তন। এর প্রয়োগের ফলে আমরা অতি সহজেই আমাদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে উপনীত হতে পারি। আমাদের দেশের তরুণ প্রজন্মকে কম্পিউটারের প্রতি আকৃষ্ট করতে পারলে দেশের অতিদ্রুত উন্নতি হবে।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url